টেক্সট ম্যাসেজের মৃত্যু

Written by  আহমেদ নকীব
  • প্রকাশ: ২০১২
  • আই এস বি এন: 978-984-8856-17-8
  • পৃষ্ঠা: ১০৭
  • বাঁধাই: বোর্ড বাঁধাই
  • মূল্য: ১৬০

অনায়াসলব্ধ গদ্যের আশ্রয়ে আহমেদ নকীবের গল্পভুবন; যেখানে লেখক তাঁর নির্বাচিত বিন্দুঘটনাসমূহ, বলা ভালো, কথাবস্তুও পারিপার্শ্বিক চরিত্রানুগ অনুঘটনাার অনুবৃত্তিকে পৃথক পৃথক ঘর তৈরি করেছেন। ঘটনাচক্রে, সেই ৭-সংখ্যক গল্প ঘরে পাঠকের ষষ্ঠেন্দ্রিয় মনোযোগ নিবিষ্ট হলে দেখা যায়, ঘরে-আটকা-পড়া গৃহগত প্রাণ, তাবৎ বস্তুনিচয়ের প্রেড়্গিতে চরিত্রসমূহের শিল্পগত চেতনার প্রতিবর্তীক্রিয়া। সীমার অধীন ঘর কিংবা পাউরম্নটির বালিশ-এর অনত্মর্নিহিত ঠাট্টা। অথবা নিতানত্ম একটি মোবাইল ফোনের প্রায়োগিক দিকচিহ্ন টেক্সট ম্যাসেজের মৃত্যু; পরন্তু, আহমেদ নকীব তাঁর ক্লারিটিসম্পন্ন গদ্যে নিত্যব্যবহার্য বস্তুপি- তথা কাঁটচামচের ভীতি গল্পে পাঠকের মানসচেতনাকে অস্বস্তিকর সূড়্গতায় নাগরিক চেতনাশীর্ষের তুঙ্গে নিয়ে যান। উপলব্ধিগত সেই তুঙ্গশীলতার কোনো পতন নেই-বরং স্পন্দন আছে।

আহমেদ নকীব, প্রণীত সপ্তগল্পবলয়ে সাধারণ বাসত্মবতাকে অনুপুঙ্খসমেত যেভাবে ধরেছেন, তাতে, তাড়িত সব চরিত্রের আত্মোম্মোচনে লেখকের সাহিত্যচেতনার সঙ্গে আমাদের নাগরিক মন ও মনন পাঠ-পরবর্তী অবিচ্ছেদ্য চেতনায় যুক্ত হয়ে যায়। সর্বোপরি মাত্রমানুষের নীরব উপস্থিতি ঘটনাবিন্দু ধরে আহমেদ নকীব তার গল্পগুলো নিয়ে বিন্দু থেকে বোধিবৃত্তের দিকে গমন করেন, ক্রমসম্প্রসারণশীল সেই বৃত্তপরিধিতে পাঠক আবিষ্কার করবেন, আমার ‘আমি’কে গল্পলেখক কী বিপ্রতীপ প্রবণতায় কেন্দ্রাতিগ ছড়িয়ে দিচ্ছেন। এবং যেখানে ‘অভিভূত’ হওয়ার কোনো অবকাশ নেই, বরং কিছু বিদ্যুতায়িত আঙুল-উচানো ইশারা কিংবা ইঙ্গিত, যা হয়তো লেখকের নিশ্চেষ্ট শিল্পমুহূর্ত। আহমেদ নকীবের সেই কল্পবাসত্মবমুহূর্ত-ই আমাদের, অর্থাৎ পাঠকের সমসত্ম মনোযোগের মৌলবিন্দু।   

         -- মাসুমুল আলম, কথাসাহিত্যিক।

 
Ulkhar